সোমবার ২০ মে ২০২৪ ০৩:০৬:৩৮ অপরাহ্ণ

শিরোনাম

 সিনিয়র সহকারী সচিব হলেন দাগনভূঞার সাবেক এসিল্যান্ড মেহরাজ     দাগনভূঞায় ক্রীড়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ     কেএনএফের নারী শাখার প্রধান সমন্বয়ক গ্রেপ্তার     নবীকে নিয়ে ক'টু'ক্তি করায় ফেনীর কাঁচা সবজির আড়তে বাদল নামের একজনকে গণধোলাই     উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ফেনীর দাগনভূঞায় আনসার ও ভিডিপি সদস্য বাছাই     সোনাগাজী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রতীক পেয়ে মাঠে নেমেছেন প্রার্থীরা     সোনালী ব্যাংক নবাবপুর শাখার জন্য জিএম, ডিজিএম এর স্কুল মার্কেট পরিদর্শন     নবাবপুর ইউনিয়নের পল্লী বিদ্যুৎ এ কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য মধ্যহ্নভোজের আয়োজন     ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিনাপ্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত খোদেজা খানম শাহিন গনি     সোনাগাজীর বগাদানায় ঘূর্নিঝড়ে ভেঙে পড়ছে দিনমজুরের ঘর,   

সোনাগাজীতে মোটরসাইকেল চুরি মামলায় দুই ইউপি সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশ : ফেব্রুয়ারি ১, ২০২৪ | সময় : ৯:৪২ অপরাহ্ণ

সোনাগাজী প্রতিনিধি: ফেনী জেলার সোনাগাজী উপজেলায় মোটরসাইকেল চুরির গাজী নোমানের দায়ের করা মামলায়  কারাগারে পাঠালো আদালত।

আজ বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ৯নং নবাবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ এর সহ-সভাপতি আলী আশ্রাফ সোহেল মেম্বার এবং আমিরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা শামীম মেম্বার গ্রেফতার।

২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও সোনাগাজী আমলী আদালতে বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের বাখরিয়া গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে আব্দুল্লাহ আল নোমান। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআই ফেনীকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার আদেশ দেন।

সুত্রে জানা গেছে, সোনাগাজী পৌরসভার রাকিব প্লাজাস্থ ‘ব্লু ড্রিম’ নামক প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী আব্দুল্লাহ আল নোমান প্রতিদিনের ন্যায় ২০২২ সালের ২৩ অক্টোবর দুপুরের দিকে মার্কেটের নিচে YAMAHA FZSV2 150 CC নামে এক লাখ চলিশ হাজার টাকা মুল্যের মোটরসাইকেল রেখে দোকানে যায়।বিকাল প্রায় ৪ টার দিকে দোকান থেকে নেমে নিচে এসে দেখে তার মোটরসাইকেলটি চুরি হয়ে যায়।এসময় খোজখবর নিয়ে না পেয়ে আশপাশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সি. সি ফুটেজ সংগ্রহ করে মোটরসাইকেল চোর ও চক্রের সদস্যদের পরিচয় সনাক্ত করে ভুক্তভোগী নোমান।

এ ঘটনায় নোমান বাদী হয়ে আমিরাবাদ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড’র ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া শামিম, পিরোজপুর জেলার সুটিয়াকাঠি এলাকার সামছুল হকের ছেলে মেহেদি হাসান তালুকদার, ফেনী সদর উপজেলার দক্ষিন ফরহাদ নগরের মৃত আলি আহম্মদের ছেলে মিন্টু মিয়া ও নবাবপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত মাস্টার জাফর আহম্মদের ছেলে আলি আশ্রাফ সোহেল এবং বরিশাল জেলার দেরবটি গ্রামের মৃত খালেক মাতব্বরের ছেলে বাদাল মতব্বর ও রনি দাসকে আন্ত: জেলা চোর চক্রের সংঘবদ্ধ সদস্য উল্লেখ করে তাদেরকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন।